মালয়েশিয়ায় সিন্ডিকেট বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান।

শাহাদাত হোসেনঃ

মালয়েশিয়ায় শ্রমিক রপ্তানির সিন্ডিকেট বন্ধের দাবিতে কুয়ালালামপুর বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান করেন বাংলাদেশ কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ। 33113891_1979881682084460_8446342402091778048_nমঙ্গলবার কুয়ালালামপুরে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর সাইদুল ইসলামের নিকট কমিউনিটির নেতৃবৃন্ধ প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের বরাবর‌ স্মারকলিপি প্রদান করেন । দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর চালু হওয়া চলমান কলিং ভিসা জি টু জি প্লাস শুরু থেকেই সিন্ডিকেটের হাতে জিম্মি শ্রমবাজারটি সিন্ডিকেটের হাত থেকে রক্ষা করে অভিবাসন ব্যয় কমিয়ে দীর্ঘমেয়াদী চালু রাখতে ৬টি দাবি তুলে

33328854_1979881698751125_4309692668683747328_nধরেন যেমন ১. মালয়েশিয়ায় শ্রমিক রপ্তানি ব্যয় কমানো ২. শ্রমিক প্রতি ৫ হাজার রিঙ্গিত (১ লক্ষাধিক টাকা) অতিরিক্ত টাকা নেওয়া বন্ধ করা ৩. শ্রমিক আনার ক্ষেত্রে সোর্স কান্ট্রি হিসেবে অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশ থেকেও শ্রমিক আনতে মালয়েশিয়ান আইন মেনে চলা ৪. শুধুমাত্র ১০ টি লাইসেন্স নয় বাংলাদেশ সরকারের নিবন্ধিত ম্যানপাওয়ার লাইসেন্সধারী সকলকেই শ্রমিক রপ্তানির কাজ করার সুযোগ দেওয়া ৫. বিদেশে শ্রমিক পাঠানোর ক্ষেত্রে শ্রমিকবান্ধব নীতিমালা তৈরি করা ৬. বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের প্রধান মাধ্যম শ্রমিক রপ্তানির পথ খোলা রাখতে সকলকে একযোগে কাজ করা l

33130361_1979881572084471_643111343292940288_nসিন্ডিকেটক আমিন গং ও ১০ কোম্পানির সিন্ডিকেট জোটবদ্ধ হয়ে এসপিপিএ কোম্পানির কথা বলে ভিসা প্রসেসিং খরচ বাবদ জনপ্রতি ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা যা বন্ধ হলে অল্প খরচে শ্রমিক রফতানি করা সম্ভব হবে ।

শেয়ার করুন

কোন মন্তব্য নেই

উত্তর দিতে