৯৯৯ এ প্রতিদিন আসছে ১৭ হাজার কল

এর এবা পাচ্ছে। বিশ্বের অন্যান্য উন্নত দেশের মতই কাজ করে যাচ্ছে সেবাটি। ৯৯৯ সূত্র জানায়, এক মাসে পাঁচ লাখ ২৭ হাজার ২৪৩ টি কল এসেছে। এর মধ্যে সমাধানযোগ্য ছিল ৭১ হাজার ৮৬৮ টি কল। যা মোট কলের ১৩ দশমিক ৬৩ শতাংশ। এর মধ্যে পুলিশি সেবা ছিল ৫৯ শতাংশ, অ্যাম্বুলেন্স সেবা ১৫ শতাংশ এবং ফায়ার সার্ভিস ২৬ শতাংশ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, জরুরি সেবা-৯৯৯ এর কার্যক্রম আরও বাড়াতে হবে।এই সেবাটি ব্যপকভাবে ছড়িয়ে দিতে হবে। ভুক্তভোগীদের দ্রুত সেবা নিশ্চিত করতে হবে। তবেই তো সাধারণ মানুষ এর সুফল পাবে।

৯৯৯ সেবা কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ তবারক উল্লাহ জানান, এই হটলাইন চালু হওয়ার পর থকে বিভিন্ন ধরনের সহায়তা চেয়ে ফোন আসছে। অনাকাঙ্ক্ষিত কলের কারণে সমাধানযোগ্য সেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। প্রতিদিন গড়ে সাড়ে ১৭ হাজার কল আসছে। ২৮ জন কল টেকার ২৪ ঘণ্টা কল রিসিভ করছেন। দ্রুত সমস্যার সমাধানও মিলছে। দিন দিন সেবাগ্রহীতা বেড়েই চলেছে। ৯৯৯ হটলাইনে একসঙ্গে ১২০ জন কল করতে পারছেন। তবে এর সংখ্যা খুব দ্রুতই কয়েকগুণ বাড়ানো হবে।

তিনি আরও বলেন, কোথাও কোনো অপরাধ ঘটলে, অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে,দূর্ঘটনায় পড়লে,প্রাণ্নাশের আশঙ্কা থাকলে ,কোনো হতাহতের ঘটনা চোখে পড়লে এবং জরুরিভাবে আম্বুলেন্সের প্রয়োজন হলে ৯৯৯ এই হটলাইনে কল করে সাহায্য চাওয়া যাবে।

শেয়ার করুন

কোন মন্তব্য নেই

উত্তর দিতে