ইরানের বিক্ষোভে যুক্তরাষ্ট্র এবং সৌদির ইন্ধন আছে : ড. দেলোয়ার হোসেন

ফারমিনা তাসলিম : দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি, কর্মসংস্থানের অভাব সহ অর্থনৈতিক কারণে ইরানের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ হলেও বতর্মানে বিক্ষোভকারীরা ধর্মীয় নেতা নিয়ন্ত্রিত সরকারকে উৎখাতের দাবি জানাচ্ছেন। এ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৪’শ লোককে গ্রেপ্তার করার পাশাপাশি অন্তত ২২ জন মারা গেছে। টেলিগ্রাম বা ইনস্ট্রাগ্রামের মতো সামাজিক মাধ্যম সাময়িকভাবে বন্ধ করে বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে দেশটির সরকার। এমন প্রেক্ষাপটে এধরনের সহিংসতা ও বিক্ষোভের পেছনে যুক্তরাষ্ট্র, ইসরায়েল ও সৌদি আরবের ইন্ধন আছে বলে মনে করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেন।

বিবিসি বাংলার কাছে এ প্রসঙ্গে জনাব হোসেন আরো বলেন, এ ধরনের বিক্ষোভ কখনো অর্থনীতির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে না। একদিকে অর্থনৈতিক, অন্যদিকে রাজনৈতিক অনুষঙ্গও এখানে যুক্ত হয়েছে। বিশেষ করে ইরানি শাসক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধেও বিক্ষোভ দেখা যাচ্ছে। এর একটা রাজনৈতিক গুরুত্ব আছে। বিশেষ করে যখন একটা বিক্ষোভ কন্টিনিউ করে তখন বিষয়টা রাজনৈতিক পর্যায়ে চলে আসে। এ বিক্ষোভের মাত্রা নানামুখী হয়ে পড়ে।

তিনি বলেন, এ বিক্ষোভের পিছনে ইরানের শত্রুদের ইন্ধন রয়েছে। সেখানে কোন দেশকে ইঙ্গিত করা হচ্ছে?

জবাবে অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমরা জানি ইরান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক শক্তি। ১৯৭৯ সালে ইরানি বিপ্লবের আগে দেশটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মিত্র ছিল। ১৯৭৯ সালের পর ইরানের সাথে পশ্চিমা বিশ্বের ভালো একটা সম্পর্ক ছিল। ইরানের একটি শক্তিশালী রাজনৈতিক অবস্থান পশ্চিমা বিশ্বের অঞ্চলে ছিল এবং এখনো আছে। ফলে এ অভ্যন্তরীণ বিক্ষোভের বিষয়টি নিয়ে আমরা ইতিমধ্যে জানি ডোনাল্ট ট্রাম্পের টুইট, ইসরায়েল বক্তব্য রাখছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যে নীতি সেগুলো কিন্তু খুব গুরুত্বপূর্ণ। ইসরায়েল বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যে বক্তব্য রাখছে, সেগুলো ইরানের পক্ষে তাদের শত্রু হিসেবে তারা ইঙ্গিত করতে পারছে। পাশাপাশি সৌদি আরবের সাথে গত কয়েক বছর ধরে ইরানের সম্পর্ক অবনতিশীল। ফলে আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ি স্পষ্ট করে বলছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং সৌদি আরবের ইন্ধন আছে। এখানে এক ধরণের রাজনৈতিক ব্যাপার আছে। ইরান বরাবরই বলে আসছে, বর্হিবিশ্বের বাস্তবতাটাকে তারা কাজে লাগিয়ে দেশের ভিতরের অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক নিয়ন্ত্রণটা প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করেছে।আমাদের সময়.কম

শেয়ার করুন

কোন মন্তব্য নেই

উত্তর দিতে