তথ্য চুরির ঝুঁকিতে স্মার্ট ডিভাইস ব্যবহারকারীরা

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া: বিভিন্ন ভাইরাসের কারণে গোপন ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চুরির ঝুঁকিতে রয়েছেন কম্পিউটার, স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট ব্যবহারকারীরা। নতুন করে তথ্য চুরির ঝুঁকিতে পড়েছে আরও কয়েক কোটি স্মার্ট ডিভাইস ব্যবহারকারী। আর এই ঝুঁকির তালিকা বাড়াচ্ছে চিপসেট মেল্টডাউন ও স্পেক্টায় ত্রুটি। প্রযুক্তিবিদদের মতে, ব্যবহারকারী এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চুরি করছে ডিজিটাল দুর্বৃত্তরা।

দীর্ঘ বিরতির পর ভালো একটি বছর কাটালো মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপলের। বছরের শেষ মাসে সর্বোচ্চ বিক্রিত হ্যান্ডসেটের তালিকায় শীর্ষে উঠে আসে আইফোন টেন। অন্যদিকে গ্যালাক্সি এইট সিরিজের হ্যান্ডসেট বিক্রিতে দারুণ সাড়া পায় দক্ষিণ কোরিয়ার প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। স্মার্ট ডিভাইস বিক্রির তালিকায় থাকা দুই প্রতিষ্ঠানের আয়েও উল্লেখযোগ্য প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

ব্যবসায়িক সফলতা পেলেও ২০১৭ সালে সমালোচনার মুখে পড়ে স্যামসাং ও অ্যাপল। দুর্বল ব্যাটারির কারণে বছরের শুরুতে গ্যালাক্সি সেভেন সিরিজের হ্যান্ডসেট প্রত্যাহারে বাধ্য হয় স্যামসাং। আর বছরের শেষ দিকে যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে হাজির হয়ে ক্ষমা চায় অ্যাপল। ব্যাটারি পরিবর্তনে বিশেষ বরাদ্দও ঘোষণা করে প্রতিষ্ঠানটি। তবে ব্যাটারি প্রতিস্থাপনে ফি নেয়ায় আবারও সমালোচনার মুখে পড়ে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

বছর শেষ হলেও প্রযুক্তি জায়ান্টদের পিছু ছাড়ছে না সমালোচনা। নতুন বছরের শুরুতেই সামনে আসে মেল্টডাউন ও স্পেক্টার ত্রুটি। এই দুই চিপে ত্রুটির কারণে তথ্য চুরির ঝুঁকিতে রয়েছেন আইওএস, অ্যান্ড্রয়েড, মাইক্রোসফট ব্যবহারকারীরা।

প্রযুক্তি আমাদের জীবনকে সহজ করেছে। একই সাথে ডিজিটাল ব্ল্যাকমেইলও সহজ হয়েছে। সব ধরনের ডিজিটাল দুর্যোগ থেকে গ্রাহকদের সুরক্ষায় কাজ করছেন প্রযুক্তি খাতের প্রকৌশলীরা। ইতোমধ্যে আক্রান্ত ডিভাইস শনাক্তের ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল, স্যামসাংসহ প্রযুক্তি খাতের নানা প্রতিষ্ঠান। তথ্য চুরি ঠেকাতে গ্রাহকদের দিক-নির্দেশনাও দিয়েছে তারা।

শেয়ার করুন

কোন মন্তব্য নেই

উত্তর দিতে