বেঁচে থাকার লড়াই

জোকস ডেস্ক:

বেঁচে থাকার লড়াই
তিন বন্ধু ছুটি কাটাতে সিঙ্গাপুর যাচ্ছিল প্লেনে করে। হঠাৎ যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে তাদের প্লেনটা ক্র্যাশ করল। জ্ঞান ফেরার পর তারা আবিষ্কার করল, তিনজনই অল্পবিস্তর আহত। তিন বন্ধু ঠিক করল, সিনেমার মত তারাও প্রতিকূল পরিবেশে টিকে থাকবে।

তাই শুরু হলো তাদের বেঁচে থাকার লড়াই। গাছের লতা-পাতা, পোকামাকড়, সমুদ্রের নোনা পানি—এসব খেয়ে তাদের দিন কাটতে লাগল।
পাশের পাঁচতারকা হোটেলের পর্যটকেরা খুব মজা নিয়েই তিন বন্ধুর আজব কাণ্ড দেখছিলেন।

২ বার অপমান
ফাইভ স্টার হোটেলে খেয়ে এক ভদ্রলোক বেয়ারাকে ৫ টাকা বকশিশ দিলেন।
বেয়ারা : স্যার, এই হোটেলে খেয়ে ৫ টাকা বকশিশ দেয়ে মানে আমাকে অপমান করা।
ভদ্রলোক : তা হলে কতো দিতে হবে?
বেয়ারা : আর ৫ টাকা দিলেই হবে।
ভদ্রলোক : সরি, তোমাকে ২ বার অপমান করার কথা ভাবতেই পারছি না!

চিঠি দিয়ো…
রফিক হোটেলে খাবারের অর্ডার দিয়ে গালে হাত দিয়ে বসে আছে। যে অর্ডার নিয়েছে তার কোনো খবর নেই। ২ ঘণ্টা পর ওয়েটার এসে, একটা আইটেম দিল, আধঘণ্টা পর দ্বিতীয় আইটেম। তৃতীয় আইটেম আনতে যাবে, এমন সময় রফিক বলল – এই শোনো, চিঠি দিয়ো, ঠিক আছে?
ওয়েটার হতভম্ব হয়ে জিজ্ঞেস করল : জি স্যার! ঠিক বুঝলাম না।
রফিক : এক আইটেম আনতে তুমি যতখানি সময় নিচ্ছ, তাতে বিরতির মাঝে আমার কথা ভুলে যাওয়াটাই স্বাভাবিক। চিঠিপত্র দিলে যোগাযোগটা থাকে আর-কি!

শেয়ার করুন

কোন মন্তব্য নেই

উত্তর দিতে